• রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন

কাজী ইরাদত আলীর অর্থায়নে ১৫ হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী বিতরন

পোস্ট করেছেন: / ১৬৮ বার পড়া হয়েছে:
পোস্ট করা হয়েছে: রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১

কাজী ইরাদত আলীর অর্থায়নে ১৫ হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী বিতরন

কাজী আনোয়ারুল ইসলাম টুটুলঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা মহামারী কালীন কর্মহীন মানুষের মাঝে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী’র নিজস্ব অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। রবিবার (১৮ জুলাই) দুপুরে কাজীবাধা গোল্ডেশিয়া জুট মিল লিমিটেড প্রাঙ্গণে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়। খাদ্য সামগ্রী বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক দিলশাদ বেগম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান, এনএসআই এর রাজবাড়ীর ডিডি শরীফুল ইসলাম।

জেলা প্রশাসক দিলশাদ বেগম বলেন, করোনার গত দেড় বছর ধরে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে যখন যে সহযোগিতা চেয়েছি জেলা কমিটি সেটা করেছেন। সেজন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এবং যেকোনো গণতান্ত্রিক দেশে সরকারের সাথে অর্থাৎ চাকরিজীবী এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ যখন একসাথে কাজ করে তখন মানুষের জন্য সবচেয়ে বেশি সেবা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়। রাজবাড়ীতে আমরা সুষ্ঠু সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করছি এবং আশা করছি ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে। আমরা সবাই মিলে রাজবাড়ী বাসির পাশে থাকবো। রাজবাড়ী বাসিকে সহায়তা করার জন্য। আজকের এই উদ্যোগের জন্য আবারও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান বলেন, এই অতিমাড়িতে মানুষের জীবন-জীবিকা কিন্তু দারুন ভাবে বিপর্যস্ত। এমতাবস্থায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী নিজস্ব অর্থায়নে মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন। গোয়ালন্দের হোটেলগুলোর চুলোর মাটি খসে পড়ছে। অর্থাৎ সাধারণ মানুষ কষ্টকরে হলেও সবার স্বার্থে সরকারের এই কঠোর নির্দেশনা লকডাউন মেনে নিচ্ছে । এ

মনি একটা অবস্থায় ঈদকে সামনে রেখে খাদ্য সামগ্রী গুলো তাদের বাড়ী বাড়ী পৌঁছে দেয়া হবে এটাই সরকারের উদ্দেশ্য। রাজনীতিবিদ যারা আছেন এবং আমরা যারা প্রশাসনে আছি জনগণের দুয়ারে সেবা পৌঁছে দেওয়াই আমাদের উদ্দেশ্য। কল্যাণ রাষ্ট্রের এটিই হচ্ছে মূল কথা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি ধন্যবাদ জানাই তিনি অত্যান্ত কঠোর ও স্বচ্ছভাবে সারাদেশব্যাপী এতবড় একটি ধকল এই অতিমারিতে গতবছর থেকে এ পর্যন্ত কেউ না খেয়ে নেই। আমার মনে হয় যে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার দ্বারপ্রান্তে আমরা পৌঁছে গেছি। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী বলেন, রাজবাড়ী সদর ও গোয়ালন্দ উপজেলার ১৭ টি ইউনিয়ন ও ২ টি পৌরসভায় ১৫ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবো। তারই অংশ হিসেবে আজ সাড়ে এগারো হাজার মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হচ্ছে । পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ প্রত্যেকটা ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এসেছেন।

তাদের মাধ্যমে তালিকা করে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে। সম্মানিত জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার এবং এনএসআই এর রাজবাড়ীর ডিডি কষ্ট করে এসে আমাদের এ কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করেছেন এজন্য আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। কোভিড-১৯ মহামারীতে রাজবাড়ী মানুষের জন্য যা যা প্রয়োজন আমি করবো। আমার শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এর একজন সৈনিক হিসেবে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো। এসময় উপস্থিত ছিলেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা মুন্সি, গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র মোঃ নজরুল ইসলাম মন্ডল, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল হোসেন, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক অরুপ দত্ত হলি, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমজান আলী খান, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফি প্রমূখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ
https://slotbet.online/