শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৫১ অপরাহ্ন
Logo
শিরোনাম:
সালথায় ৬শ’ ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার মাটিরাংগা উপজেলায় তাইন্দং টু মাটিরাংগা রাস্তার বেহাল দশা, যান চলাচলে অযোগ্য মাটিরাংগা উপজেলায় তাইন্দং টু মাটিরাংগা রাস্তার বেহাল দশা, যান চলাচলে অযোগ্য মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার তারুণ্য সমাজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর বর্ষপূর্তি ও সেরা স্বেচ্ছাসেবক সম্মাননা ২০২২ সমপন্ন।

জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন মাসুদ লস্কর

রিপোর্টার
  • পোস্ট করা হয়েছে শুক্রবার, ১১ নভেম্বর, ২০২২
  • ২২ বার পড়া হয়েছে

সোহাগ মিয়া, (মাধবপুর) হবিগন্জ প্রতিনিধিঃ

২৩ বছর ধরে মাঠের সাংবাদিকতা থেকে বেড়ে উঠা মাসুদ লস্কর ভাইয়ের জন্মদিন। তিনি একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক, সৎ এবং সাহসী সত্য প্রকাশে নির্ভিক সাংবাদিক এবং আমার শ্রদ্ধেয় বড় ভাই।

মাসুদ লস্কর প্রথম আলো, আজাদী, কর্ণফুলি, দৈনিক দেশবাংলা, দৈনিক স্বদেশ বিচিত্রা পত্রিকা সহ বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদিত ই-প্রেস নিউজ এর নির্বাহী সম্পাদক, ই-প্রেস ক্লাবের উদ্যোক্তা, কেন্দ্রীয় কমিটির মুখপাত্র, সিলেট বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। তাছাড়া মাসিক সাহিত্য দর্পন নামক ম্যাগাজিন এর সম্পাদক হিসাবে কর্মরত রয়েছেন।

তিনি হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলাধীন শিমুলঘর গ্রামের পিতা মোঃ মুকিম উদ্দিন লস্কর ও মাতা সৈয়দা সালমা আক্তারের ঘর আলোকিত করে ২য় সন্তান মাসুদ লস্কর ১৯৭৮ সালের ১১ই নভেম্বর এই দিনে পৃথিবীতে জন্ম নেন।

মাসুদ লস্কর ভাই সাংবাদিকতায় রেখে চলেছেন অগ্রণী ভূমিকা। যেখানে অন্যায় অত্যাচার, অপরাধ, দুর্নীতি, দুঃশাসন সেখানেই নির্ভীক, সাহসী, এক সাংবাদিকের পদচারণ। যে কোন মূল্যেই তিনি তুলে নিয়ে আসবেন ঘটনার অন্তরালের মূল ঘটনা।

অপরাধ ও অপরাধী যত গভীরেই থাকুক না কেন সেখান থেকেই তিনি তার চতুরতা, একনিষ্ঠ কর্মদক্ষতা দিয়ে টেনে বের করেন লুকানো সেইসব অপরাধীদের। তাদের মন্দ কাজের সকল আমলনামা। তুলে ধরেন দেশ ও জাতীর সম্মুখে। সত্যের সন্ধানেরত নির্ভীক প্রথিতযশা সাংবাদিক মাসুদ লস্কর।

জন্ম দিনের শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে প্রতিবেদকের সাক্ষাৎকারে সাংবাদিক মাসুদ লস্কর বলেন, শুক্রবার (১১ নভেম্বর) ছিল আমার জন্মদিন। প্রথমেই সকল প্রশংসা জ্ঞাপন করছি সেই মহান আল্লাহকে। যিনি আমাকে আপনাদের সকলের ভালোবাসায় সিক্ত ও প্রিয় হবার তৌফিক দিয়েছেন শুকরিয়া (আলহামদুলিল্লাহ) !

১১ নভেম্বর রাত ১২ টা বাজার পর থেকেই আমার শ্রদ্ধেয় মিডিয়ার বড় ভাই-বোন, সহকর্মী, সিনিয়র, জুনিয়র, সহপাঠী, আত্মীয়-স্বজন, ছোট ভাই-বোন ও প্রান প্রিয় বন্ধুরা ফেসবুক, মেসেঞ্জার, টেক্সট, হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো ও মোবাইল ফোনে কল সহ বিভিন্ন মাধ্যমে যারা আমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সকলের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।

আপনাদের এমন আন্তরিকতা , ভালবাসা , শুভেচ্ছা ও আমার প্রতি শুভ কামনা সত্যিই আমাকে উদ্বেলিত ও মুগ্ধ করেছে।

আমার উচিত ছিল প্রত্যেকের শুভেচ্ছার জবাব ব্যক্তিগতভাবে দেয়া কিন্তু যে পরিমান শুভেচ্ছা আপনারা আমাকে জানিয়েছেন তার আলাদা করে জবাব দেয়ার কাজটি আমার জন্য সত্যিই কঠিন হয়ে পড়েছে।

আপনাদের ভালবাসায় আমি এমনভাবে সিক্ত যে আপনাদের কারো কারো শুভেচ্ছা বার্তা পড়েছি আর চোখের পানি ফেলেছি। কিছু মেসেজ সত্যিই অনেক আবেগের ভালোলাগার ছিলো। আপনাদের এই অফুরন্ত ও স্বাচ্ছন্দময়ী ভালোবাসা আমার হৃদয়ের গভীরে অনাবিল স্থান হয়ে থাকবে। আপনাদেরকে স্মরণ রাখবো আজীবন।

প্রত্যেকটি মানুষের কাছে তার জন্মদিনের বার্তাটি আনন্দের। আমার মতো একজন অতিক্ষুদ্র মানুষের কাছেও তেমনই।

তিনি আরো জানান, সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহর প্রতি লাখো কোটি শুকরিয়া ও আমার প্রাণপ্রিয় বাবা-মায়ের প্রতি সশ্রদ্ধ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি যাদের কল্যাণে আমি আজ পৃথিবীর আলো দেখতে পারছি। আমি সবার কাছে দোয়া চাই। আমি অতিক্ষুদ্র মানুষ টা যাতে একদিন বৃহৎ হতে পারি আমার কর্মের মাধ্যমে। একজন কলম সৈনিক হিসেবে দেশের সেবা করতে পারি।

আজ শৈশব, কৈশর আর অনেকটা সময় পেছনে ফেলে যৌবনে আমি। জীবন চলার বাঁকে জন্ম দিয়েছি কত রূপকথা, কত ধরনের লেখনি। ছোট্ট একটা জীবনে কত ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আছি। এই পৃথিবীতে এমনি একটি দিনে আমি এসেছিলাম। সেই জন্য আমি আমার সৃষ্টিকর্তা মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে দায়বদ্ধ। তিনি আমায় সৃষ্টি করেছেন তিনিই আমার রব।

আজ থেকে মৃত্যুর এক বছর কাছাকাছি চলে এলাম! জীবনটা অনেক সুন্দর যদি সুন্দর করে দেখা যায়। তবে একথাও ঠিক বিচিত্র এই জীবনে বৈচিত্রময় হয়ে ওঠা অনেকটাই কঠিন। যারা হয়ে উঠতে পারে তাদেরকেই মানবজাতি সারাজীবন মনে রাখে।

পরিশেষে আবারও সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং আমার অন্তরের অন্ত:স্থল থেকে অফুরন্ত ভালোবাসা ও আন্তরিক অভিনন্দন সহ লাল গোলাপের অনাবিল সু-গন্ধিত শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। সাথে সাথে আপনাদের সকলের সুন্দর ভবিষ্যত এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন এই প্রত্যাশা করছি!

তিনি সারাদিন কর্মব্যস্ততার কারনে সকলের পাঠানো শুভেচ্ছার জবাব দিতে দেরি হওয়ায় আন্তরিকভাবে দু:খ প্রকাশ করেছেন।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন মাসুদ লস্কর

রিপোর্টার
  • পোস্ট করা হয়েছে শুক্রবার, ১১ নভেম্বর, ২০২২
  • ২২ বার পড়া হয়েছে

সোহাগ মিয়া, (মাধবপুর) হবিগন্জ প্রতিনিধিঃ

২৩ বছর ধরে মাঠের সাংবাদিকতা থেকে বেড়ে উঠা মাসুদ লস্কর ভাইয়ের জন্মদিন। তিনি একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক, সৎ এবং সাহসী সত্য প্রকাশে নির্ভিক সাংবাদিক এবং আমার শ্রদ্ধেয় বড় ভাই।

মাসুদ লস্কর প্রথম আলো, আজাদী, কর্ণফুলি, দৈনিক দেশবাংলা, দৈনিক স্বদেশ বিচিত্রা পত্রিকা সহ বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদিত ই-প্রেস নিউজ এর নির্বাহী সম্পাদক, ই-প্রেস ক্লাবের উদ্যোক্তা, কেন্দ্রীয় কমিটির মুখপাত্র, সিলেট বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। তাছাড়া মাসিক সাহিত্য দর্পন নামক ম্যাগাজিন এর সম্পাদক হিসাবে কর্মরত রয়েছেন।

তিনি হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলাধীন শিমুলঘর গ্রামের পিতা মোঃ মুকিম উদ্দিন লস্কর ও মাতা সৈয়দা সালমা আক্তারের ঘর আলোকিত করে ২য় সন্তান মাসুদ লস্কর ১৯৭৮ সালের ১১ই নভেম্বর এই দিনে পৃথিবীতে জন্ম নেন।

মাসুদ লস্কর ভাই সাংবাদিকতায় রেখে চলেছেন অগ্রণী ভূমিকা। যেখানে অন্যায় অত্যাচার, অপরাধ, দুর্নীতি, দুঃশাসন সেখানেই নির্ভীক, সাহসী, এক সাংবাদিকের পদচারণ। যে কোন মূল্যেই তিনি তুলে নিয়ে আসবেন ঘটনার অন্তরালের মূল ঘটনা।

অপরাধ ও অপরাধী যত গভীরেই থাকুক না কেন সেখান থেকেই তিনি তার চতুরতা, একনিষ্ঠ কর্মদক্ষতা দিয়ে টেনে বের করেন লুকানো সেইসব অপরাধীদের। তাদের মন্দ কাজের সকল আমলনামা। তুলে ধরেন দেশ ও জাতীর সম্মুখে। সত্যের সন্ধানেরত নির্ভীক প্রথিতযশা সাংবাদিক মাসুদ লস্কর।

জন্ম দিনের শুভেচ্ছা বার্তা নিয়ে প্রতিবেদকের সাক্ষাৎকারে সাংবাদিক মাসুদ লস্কর বলেন, শুক্রবার (১১ নভেম্বর) ছিল আমার জন্মদিন। প্রথমেই সকল প্রশংসা জ্ঞাপন করছি সেই মহান আল্লাহকে। যিনি আমাকে আপনাদের সকলের ভালোবাসায় সিক্ত ও প্রিয় হবার তৌফিক দিয়েছেন শুকরিয়া (আলহামদুলিল্লাহ) !

১১ নভেম্বর রাত ১২ টা বাজার পর থেকেই আমার শ্রদ্ধেয় মিডিয়ার বড় ভাই-বোন, সহকর্মী, সিনিয়র, জুনিয়র, সহপাঠী, আত্মীয়-স্বজন, ছোট ভাই-বোন ও প্রান প্রিয় বন্ধুরা ফেসবুক, মেসেঞ্জার, টেক্সট, হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো ও মোবাইল ফোনে কল সহ বিভিন্ন মাধ্যমে যারা আমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সকলের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।

আপনাদের এমন আন্তরিকতা , ভালবাসা , শুভেচ্ছা ও আমার প্রতি শুভ কামনা সত্যিই আমাকে উদ্বেলিত ও মুগ্ধ করেছে।

আমার উচিত ছিল প্রত্যেকের শুভেচ্ছার জবাব ব্যক্তিগতভাবে দেয়া কিন্তু যে পরিমান শুভেচ্ছা আপনারা আমাকে জানিয়েছেন তার আলাদা করে জবাব দেয়ার কাজটি আমার জন্য সত্যিই কঠিন হয়ে পড়েছে।

আপনাদের ভালবাসায় আমি এমনভাবে সিক্ত যে আপনাদের কারো কারো শুভেচ্ছা বার্তা পড়েছি আর চোখের পানি ফেলেছি। কিছু মেসেজ সত্যিই অনেক আবেগের ভালোলাগার ছিলো। আপনাদের এই অফুরন্ত ও স্বাচ্ছন্দময়ী ভালোবাসা আমার হৃদয়ের গভীরে অনাবিল স্থান হয়ে থাকবে। আপনাদেরকে স্মরণ রাখবো আজীবন।

প্রত্যেকটি মানুষের কাছে তার জন্মদিনের বার্তাটি আনন্দের। আমার মতো একজন অতিক্ষুদ্র মানুষের কাছেও তেমনই।

তিনি আরো জানান, সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহর প্রতি লাখো কোটি শুকরিয়া ও আমার প্রাণপ্রিয় বাবা-মায়ের প্রতি সশ্রদ্ধ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি যাদের কল্যাণে আমি আজ পৃথিবীর আলো দেখতে পারছি। আমি সবার কাছে দোয়া চাই। আমি অতিক্ষুদ্র মানুষ টা যাতে একদিন বৃহৎ হতে পারি আমার কর্মের মাধ্যমে। একজন কলম সৈনিক হিসেবে দেশের সেবা করতে পারি।

আজ শৈশব, কৈশর আর অনেকটা সময় পেছনে ফেলে যৌবনে আমি। জীবন চলার বাঁকে জন্ম দিয়েছি কত রূপকথা, কত ধরনের লেখনি। ছোট্ট একটা জীবনে কত ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আছি। এই পৃথিবীতে এমনি একটি দিনে আমি এসেছিলাম। সেই জন্য আমি আমার সৃষ্টিকর্তা মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে দায়বদ্ধ। তিনি আমায় সৃষ্টি করেছেন তিনিই আমার রব।

আজ থেকে মৃত্যুর এক বছর কাছাকাছি চলে এলাম! জীবনটা অনেক সুন্দর যদি সুন্দর করে দেখা যায়। তবে একথাও ঠিক বিচিত্র এই জীবনে বৈচিত্রময় হয়ে ওঠা অনেকটাই কঠিন। যারা হয়ে উঠতে পারে তাদেরকেই মানবজাতি সারাজীবন মনে রাখে।

পরিশেষে আবারও সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং আমার অন্তরের অন্ত:স্থল থেকে অফুরন্ত ভালোবাসা ও আন্তরিক অভিনন্দন সহ লাল গোলাপের অনাবিল সু-গন্ধিত শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। সাথে সাথে আপনাদের সকলের সুন্দর ভবিষ্যত এবং দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন এই প্রত্যাশা করছি!

তিনি সারাদিন কর্মব্যস্ততার কারনে সকলের পাঠানো শুভেচ্ছার জবাব দিতে দেরি হওয়ায় আন্তরিকভাবে দু:খ প্রকাশ করেছেন।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

© All rights reserved © 2022
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Popular IT Club
Popularitclub_NewsPortal