• সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:১৬ অপরাহ্ন

ফরিদপুর জেলা প্রশাসনে সৃজতি হলো তারা উদ্যান

পোস্ট করেছেন: / ১৭০ বার পড়া হয়েছে:
পোস্ট করা হয়েছে: রবিবার, ৩০ মে, ২০২১

ফরিদপুর জেলা প্রশাসনে সৃজতি হলো তারা উদ্যান

আলমগীর জয় : ফরদিপুর জলো প্রশাসনে সৃজন করা হয়ছেে ফলদ, বনজ, ঔষুধি ও রঙবরেঙ্গরে নানা ফুলরে গাছরে সমন্বয়ে তারা উদ্যান। হাজার বছররে শ্রষ্ঠে বাঙ্গালি স্বাধীনতার মহানায়ক বাংলাদশেরে স্রষ্টা জাতরি পতিা বঙ্গবন্ধু শখে মুজবিুর রহমানরে জন্মশতর্বাষকিীতে ফরদিপুর জলো প্রশাসনরে উদ্যোগে গড়ে তােলা হয়ছেে এ উদ্যান। ফরদিপুররে জলো প্রশাসক অতুল সরকাররে চন্তিা ও পরকিল্পনায় র্কাযালয়রে দ্বতিীয় তলার ছাদে এ উদ্যান সৃজন করা হয়ছে।ে আজ ৩০ ম,ে ২০২১ খ্রস্টিাব্দ রববিার সকাল ১০ টায় উদ্বোধন করনে ফরদিপুররে জলো প্রশাসক অতুল সরকার।

এ সময় স্থানীয় সরকাররে উপপরচিালক মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা, অতরিক্তি জলো প্রশাসক (র্সাবকি) দীপক কুমার রায়, অতরিক্তি জলো প্রশাসক (রাজস্ব) মোসাঃ তাসলমিা আলী, নজোরত ডপেুটি কালক্টের (এনডসি)ি আশকি আহমদে, সহকারী কমশিনার (গোপনীয়) তারকে হাসান, রভেনিউি ডপেুটি কালক্টের (আরডসি)ি তানয়িা আক্তারসহ প্রশাসনরে র্উদ্ধতন র্কমর্কতাবৃন্দ উপস্থতি ছলিনে। উদ্যানে মোট ৫০ প্রজাতরি ১শটি ফলদ, ঔষুধি ও ফুলরে গাছ রোপন করা হয়ছে।

এসবরে মধ্যে রয়ছেে গৌড়মতি আম, বারি ফোর আম, বারী এগার আম, ব্রনাই কংি, আমরেকিান ক্যাট, কাটমিন ব্যানানা, র্সূয ডমি, পলমল, ছাতকরে কমলা, আস্ট্রলেয়িা কমলা, চায়না কমলা, র্দাজলেংি কমলা, পাকস্তিানি বদোনা, লাল বদোনা, করমচা, জলপাই, থাই মালটা, বার-ি১ মালটা, বরেগিডে মালটা, পয়সা মালটা, থাই জাম্বুরা, লটকন, লচিু-চায়না, থ্রি সাতকরা ফল, কুল কাশমরেী, কুল বল সুন্দরী, কুল সীডলসে, লবেু চায়না, লবেু থাই, লবেু হাইব্রডি, বলে হাইব্রডি, কদবলে হাই ব্রডি, কামরাংগা , লাল জামরুল, আমলক,ি হাসনা হনো, ড্রাগন সাদা, ড্রাগন লাল, ড্রাগন হলুদ, থাই ছবদো, সাদা জাম, থাই আমড়া, কাওফল, ডাওয়া, চালত,ে স্থলপদ্ম, শরফিা ফল (থাইল্যান্ড), আঙ্গুর, পয়োরা, জাপাটি কাবা (ব্রাজলি), শান তলৈ (ফলিপিাইন), লংগান (থাইল্যান্ড), থাই ততেুল, এব্যাকোডা (আমরেকিান), লাল আতা, কালো জাম, বহরো, রডে লডেি পঁেপ,ে চরেি ফল (থাইল্যান্ড), থাই লাল কাঁঠাল, লজ্জাবতি গাছ, শোরভকাঠি লাল পয়োর, শোরভকাঠি পয়োর, থাই পয়োরা, লাল বদোনা, রয়লে ফল, আলু বোখরা ইত্যাদ।

উদ্যান সৃজন সর্ম্পকে জলো প্রশাসক অতুল সরকার বলনে, মুজবির্বষে বভিন্নি র্কমকান্ডরে অংশ হসিবেে আমরা শত প্রজাতরি গাছ নয়িে এই বাগান সৃজন করছে।ি এটা সৌর্ন্দয র্বধনে ভূমকিা রাখব।ে পুরো অফসিটাকে সবুজ রূপ দয়োর চষ্টো করছ।ি পরবিশেরে সুস্থতা রর্ক্ষাথে আমরা অফসিটাকে গ্রীন অফসিে পরণিত করতে চাই, যনে এই অফসিটি অন্য মানুষ ও প্রতষ্ঠিানকে উৎসাহতি কর।ে অফসি বাসা-বাড়রি আঙ্গনিা, সব জায়গায় যনে আমরা বৃক্ষ রোপনরে জন্য তনিি আহবান করনে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ
https://slotbet.online/