শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন
Logo
শিরোনাম:
সালথায় ৬শ’ ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার মাটিরাংগা উপজেলায় তাইন্দং টু মাটিরাংগা রাস্তার বেহাল দশা, যান চলাচলে অযোগ্য মাটিরাংগা উপজেলায় তাইন্দং টু মাটিরাংগা রাস্তার বেহাল দশা, যান চলাচলে অযোগ্য মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান মীরসরাইয়ে হেমন্ত সাহিত্য আসরে বাংলার ষড়ঋতুর জয়গান কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার কুষ্টিয়ায় ধান খেত থেকে নবজাতকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার তারুণ্য সমাজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর বর্ষপূর্তি ও সেরা স্বেচ্ছাসেবক সম্মাননা ২০২২ সমপন্ন।

মণিরামপুরে ইউপি নির্বাচন নিয়ে ভোটার সাধারন আতঙ্কগ্রস্ত হুমকি-ধামকি-হামলা-মামলা-সংঘাত ও দলীয় কোন্দল চরমে

রিপোর্টার
  • পোস্ট করা হয়েছে শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৯৮ বার পড়া হয়েছে

(যশোর)প্রতিনিধিঃ আর মাত্র একদিন বাদেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ১৬ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে। গত ১২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর থেকে মণিরামপুরের ১৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৯ জন এবং ১৬ ইউনিয়নে সংরতি নারী সদস্য পদে ১৮২ জন প্রার্থী এবং সাধারন সদস্য পদে ৬০৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে প্রতিদ্ব›িদ্ব অপর তিন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় উপজেলার ১২ নং শ্যামকূড় ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন একক প্রার্থী হিসেবে বিনাপ্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে শক্ত অবস্থানে থাকা সত্বেও মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে সংবাদ সম্মেলন করে তার নিজের জীবনের নিরাপত্তা ও তার অনুসারী দলীয় নেতৃবৃন্দ ও কর্মী-সমর্থকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ান। এ ছাড়া উপজেলার ১৫ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী,আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এবং বিএনপি ও জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ৭৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতায় থাকলেও প্রতীক বরাদ্দের পরে উপজেলার খানপুর ইউনিয়ন থেকে বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউনিয়ন বিএনপি নেতা মাহাবুর রহমান ও হরিদাসকাটি ইউনিয়নের বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মণিরামপুর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য প্রভাষক নিছার আলী সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ানোর ঘোষনা দেন। অন্যদিকে নির্বাচনী প্রচারনাকালে বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীদের কর্মী ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন ইউনিয়নে ইতোমধ্যে ব্যাপক হামলা,ভাঙচুর,অগ্নিসংযোগ ও তান্ডব চালিয়ে প্রার্থী, কর্মী-সমর্থক ও ভোটার সাধারনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে বলে বিভিন্ন সুত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে। জানা গেছে ১৫ ইউপি’র মধ্যে অন্ততঃ ১০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর প্রধান প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করায় এসব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদেরকে দল থেকে বহিস্কার করা হলেও দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে তারা শক্ত অবস্থানে থেকে নির্বাচনী প্রাচরনা চালাচ্ছেন। অনেক ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থীর কাছে ধরাশায়ী আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী। দলীয় কোন্দলের জের হিসেবে হরিদাসকাটি ইউনিয়নের আওয়ামালীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন লিটন ও তার সহোদর ভাই জাহাঙ্গীর হোসেনকে হত্যাকল্পে সন্ত্রাসীরা হামলা করে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এখনও তাদের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। এ ছাড়া উপজেলার দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাসুদ পারভেজ ও মণিরামপুর সদর ইউনিয়নের নৌকা মার্কার প্রার্থী এয়াকুব আলীর নির্বাচনী অফিসে সন্ত্রাসীরা হামলা,ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে। ভোজ গাতী ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী আসমাতুন্নাহারের নির্বাচনী প্রচারনায় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক ও অপর বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সহিদুল ইসলাম মোড়লের কর্মী-সমর্থরা বাধা প্রদান ও হুমকী ধামকী দেওয়ায় নৌকার প্রার্থী এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। নেহালপুর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী ফারুক হুসাইনের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ইউনিয়ন সভাপতি রুহুল আমীন ও সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামানকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করেছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রভাবশালী প্রার্থীরা নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে এলাকায় অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। উপজেলার শ্যামকূড় ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে ভোটারদের ভয়ভীতি দেওয়া হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন না হওয়ায় প্রভাবশালী মেম্বর প্রার্থীরা ভোদের দিনে প্রশাসনের নজরদারি কম থাকতে পারে বলে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। একাধিক সুত্রে জানা গেছে, অন্তত ১০ টি ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর প্রধান অন্তরায় হলো আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। উপজেলার রোহিতা, কাসিমনগর, ভোজগাতী, ঢাকুরিয়া,হরিদাসকাটি, খেদাপাড়া, ঝাঁপা,চালুয়াহাটি, খানপুর, দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর প্রাধান প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। এ সব ইউনিয়নের মধ্যে ৮/৯ টি ইউনিয়নে নৌকার বিপর্যয় হতে পারে বলে আশংকা করছেন নির্বাচন পর্যবেক্ষকবোদ্ধারা। অনেকে এ সব ইউনিয়নের মধ্যে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয় লাভ করতে পারেন বলে ধারনা করছেন। নির্বাচনপূর্ব আসন্ন এই মূহুর্তে নির্বাচনী সার্বিক পরিবেশ নিয়ে তাই অনেক ভোটার-সাধারন আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য তাই সকল ইউনিয়নের নাগরিকদের পক্ষ থেকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য প্রশাসনের জোরালো তৎপরতার জন্য দাবি উঠেছে।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

মণিরামপুরে ইউপি নির্বাচন নিয়ে ভোটার সাধারন আতঙ্কগ্রস্ত হুমকি-ধামকি-হামলা-মামলা-সংঘাত ও দলীয় কোন্দল চরমে

রিপোর্টার
  • পোস্ট করা হয়েছে শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৯৮ বার পড়া হয়েছে

(যশোর)প্রতিনিধিঃ আর মাত্র একদিন বাদেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ১৬ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে। গত ১২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর থেকে মণিরামপুরের ১৫টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৯ জন এবং ১৬ ইউনিয়নে সংরতি নারী সদস্য পদে ১৮২ জন প্রার্থী এবং সাধারন সদস্য পদে ৬০৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে প্রতিদ্ব›িদ্ব অপর তিন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় উপজেলার ১২ নং শ্যামকূড় ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন একক প্রার্থী হিসেবে বিনাপ্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে শক্ত অবস্থানে থাকা সত্বেও মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে সংবাদ সম্মেলন করে তার নিজের জীবনের নিরাপত্তা ও তার অনুসারী দলীয় নেতৃবৃন্দ ও কর্মী-সমর্থকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ান। এ ছাড়া উপজেলার ১৫ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী,আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এবং বিএনপি ও জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ৭৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্ব›িদ্বতায় থাকলেও প্রতীক বরাদ্দের পরে উপজেলার খানপুর ইউনিয়ন থেকে বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউনিয়ন বিএনপি নেতা মাহাবুর রহমান ও হরিদাসকাটি ইউনিয়নের বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মণিরামপুর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য প্রভাষক নিছার আলী সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ানোর ঘোষনা দেন। অন্যদিকে নির্বাচনী প্রচারনাকালে বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থীদের কর্মী ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন ইউনিয়নে ইতোমধ্যে ব্যাপক হামলা,ভাঙচুর,অগ্নিসংযোগ ও তান্ডব চালিয়ে প্রার্থী, কর্মী-সমর্থক ও ভোটার সাধারনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে বলে বিভিন্ন সুত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে। জানা গেছে ১৫ ইউপি’র মধ্যে অন্ততঃ ১০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর প্রধান প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করায় এসব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদেরকে দল থেকে বহিস্কার করা হলেও দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে তারা শক্ত অবস্থানে থেকে নির্বাচনী প্রাচরনা চালাচ্ছেন। অনেক ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থীর কাছে ধরাশায়ী আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী। দলীয় কোন্দলের জের হিসেবে হরিদাসকাটি ইউনিয়নের আওয়ামালীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন লিটন ও তার সহোদর ভাই জাহাঙ্গীর হোসেনকে হত্যাকল্পে সন্ত্রাসীরা হামলা করে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এখনও তাদের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। এ ছাড়া উপজেলার দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাসুদ পারভেজ ও মণিরামপুর সদর ইউনিয়নের নৌকা মার্কার প্রার্থী এয়াকুব আলীর নির্বাচনী অফিসে সন্ত্রাসীরা হামলা,ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে। ভোজ গাতী ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী আসমাতুন্নাহারের নির্বাচনী প্রচারনায় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক ও অপর বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সহিদুল ইসলাম মোড়লের কর্মী-সমর্থরা বাধা প্রদান ও হুমকী ধামকী দেওয়ায় নৌকার প্রার্থী এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। নেহালপুর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী ফারুক হুসাইনের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ইউনিয়ন সভাপতি রুহুল আমীন ও সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামানকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করেছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন ইউনিয়নে প্রভাবশালী প্রার্থীরা নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যে তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে এলাকায় অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। উপজেলার শ্যামকূড় ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে ভোটারদের ভয়ভীতি দেওয়া হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন না হওয়ায় প্রভাবশালী মেম্বর প্রার্থীরা ভোদের দিনে প্রশাসনের নজরদারি কম থাকতে পারে বলে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। একাধিক সুত্রে জানা গেছে, অন্তত ১০ টি ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর প্রধান অন্তরায় হলো আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। উপজেলার রোহিতা, কাসিমনগর, ভোজগাতী, ঢাকুরিয়া,হরিদাসকাটি, খেদাপাড়া, ঝাঁপা,চালুয়াহাটি, খানপুর, দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর প্রাধান প্রতিদ্ব›িদ্ব আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। এ সব ইউনিয়নের মধ্যে ৮/৯ টি ইউনিয়নে নৌকার বিপর্যয় হতে পারে বলে আশংকা করছেন নির্বাচন পর্যবেক্ষকবোদ্ধারা। অনেকে এ সব ইউনিয়নের মধ্যে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয় লাভ করতে পারেন বলে ধারনা করছেন। নির্বাচনপূর্ব আসন্ন এই মূহুর্তে নির্বাচনী সার্বিক পরিবেশ নিয়ে তাই অনেক ভোটার-সাধারন আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য তাই সকল ইউনিয়নের নাগরিকদের পক্ষ থেকে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য প্রশাসনের জোরালো তৎপরতার জন্য দাবি উঠেছে।

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ

© All rights reserved © 2022
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Popular IT Club
Popularitclub_NewsPortal